কেন তুমি ছেড়ে দাও?

কেন তুমি ছেড়ে দাও? 

হয়তো আজ তুমি তোমার জীবনে খুব ক্লান্ত অনুভব করছো। খুব দুর্বল অনুভব করছো। তুমি খুব অলস বোধ করছো। আর তাই তুমি একটা সমাধান খুঁজে বেড়াচ্ছ। আর এটাই স্বাভাবিক সমস্যার সমাধান খোঁজা। কিন্তু প্রশ্ন হলো তুমি কেমন ধরনের সমাধান চাইছো। কিংবা কতটা সমাধান চাইছো। প্রকৃত সমাধান নাকি বিকল্প সমাধান। ক্ষণস্থায়ী সমাধান নাকি দীর্ঘস্থায়ী সমাধান। বিকল্প তোমার কাছে প্রচুর রয়েছে। তুমি ক্লান্ত অনুভব করছো তুমি ঘুমিয়ে নিচ্ছ। তুমি দুর্বল অনুভব করছো তুমি মোটিভেশনাল আলোচনা পড়ছো। তুমি অলস বোধ করছো আর বিনোদনের টনিক গিলছো। আর এগুলো সবই ঠিক কিংবা যথেষ্ট একটা মাঝারী মাপের জীবনযাত্রার জন্য। কিন্তু আমি জানি তোমরা অনেকেই সন্তুষ্ট নও। এমন মাঝারী মাপের জীবনযাত্রায় এমন গড় পড়তার জীবন যাত্রায়। এমন গড়পড়তার জীবনযাত্রায় তোমরা অনেকেই চাও জীবনটাকে একটা বড় জায়গায় নিতে যেতে একটা অন্য মাত্রায় নিয়ে যেতে। আর তাই তোমাদের মধ্যে অনেকেই ইতিমধ্যে পদক্ষেপ নেওয়া শুরু করেছো দারুন। কারণ যে মুহূর্তে তুমি এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছো এরং এটাকে চলতে শুরু করেছো। ঠিক সেই মুহূর্তেই তুমি পিছনে ফেলে এলে এমন মানুষদের যারা শুধু শুরুর স্বপ্ন দেখছে। কিন্তু আজও তারা শুরু করতে পারেনি। আর এগুলো সবই সম্পূর্ণ তাদের ব্যাপার। কিন্তু তুমি যখন শুরু করেছো এবং এটাতে চলছো তোমার সামনে প্রচুর বাঁধা আসছে। প্রচুর সমস্যা আসছে। এমন সব বাঁধা যা আগে কখনো আসেনি। এমন সব সমস্যা যা আগে কখনো ঘটেনি। তুমি খুব ক্লান্ত অনুভব করছো শারীরিক ভাবে। তুমি খুব যন্ত্রণা অনুভব করছো মানসিক ভাবে। আর ঠিক তখন থেকেই তোমার পদক্ষেপ নেওয়ার প্রবণতা ধীরে ধীরে কমতে থাকছে। তুমি আবার তোমার পুরানো জীবন যাত্রায় ফিরে যাচ্ছো এবং তুমি আবারও সেই ফেলে আসা মানুষ গুলোর দলে নতুন করে যোগ দিচ্ছ। কিন্তু  কিছুদিন পর তুমি আবারও নিজের জীবনে অসন্তুষ্ট অনুভব করছো। আর তাই তোমার মনে হয় তোমার আবারও চেষ্টার দরকার। হয়তো আগের নেওয়া পদক্ষেপ গুলো ছিল ত্রুটিপূর্ণ। কিংবা তোমার ছেড়ৈ দেওয়াটা উচিত হয় নি। আর সেই মতোই তুমি আবারও পদেক্ষেপ নিয়ে ফেলো। কিন্তু ঘটনাচক্রে আবারও তুমি সব আগের মতো অনুভব করতে থাকো। সেই বাঁধা সেই সমস্যা সেই ক্লান্তি সেই যন্ত্রণা তুমি ভীষণ দুর্বল অনুভব করতে থাকো। আর তুমি আবারও বাধ্য হয়েই ছেড়ে দাও। তুমি না চাইলেও তোমাকে ফিরতেই হয় তোমার আগের জীবনে। এভাবেই এগোতে থাকে সময়  কাটে দিন কাটে মাস। আর তুমি অসহায় ভাবে দেখো জীবনের পরিহাস। আর এবার তোমার মনে হয় আমার দ্বারা সম্ভব নয় বড় হওয়া তো দূরে থাক। জীবন বড়ই যন্ত্রণাময় আর সেই যন্ত্রণাকে ঢাকতে তুমি আশ্রয় নাও সোশ্যাল মিডিয়ায়। তমি আশ্রয় নাও বিনোদন দুনিয়ায়। কিন্তু কোথাও তোমার অন্তরের সত্তা প্রকৃত সমাধান খুঁজতে চায়। তুমি খোঁজ পাও বিনা পানি ওয়েব সাইড এর নতুন আশায় নিজের ভাষায়। এমন সব পাওয়ারফুল মোটিভেশন যা তোমাকে বিবেক আর চেতনাকে কোথাও যেন নাড়া দেয়। তোমার মনে আবারও নতুন করে আশা জাগায়। আবারও তোমার মনে হয় আমি পারবো। আমি করবো আমি গড়ব। আমি লড়ব আমি জিতবো ব্যাস এই অনুভূতিটুকুই তোমাকে সন্তুষ্টি দেয়। প্রকৃত পদক্ষেপ নিতে গেলেই তোমার কষ্ট হয়। অলসতা যে তোমার পুরোনো বন্ধু তার সামনে এই পাঁচ মিনিটের মোটিভেশন এটা জ্যাস্ট কিছুই নয়। আজকে আমি চাই তোমাকে পরিচয় করাতে কিছু প্রকৃত সত্যের যে কোন ধরণের মোটিভেশন বা কোনো ধরণের শিক্ষামূলক বই বা কোনো ধরণের যুগান্তকারী ফরমুলা তোমার জীবনে চিরস্থায়ী পরিবর্তন আনতে পারে না। যতক্ষণ না তুমি এগুলোকে সঠিকভাবে ব্যবহার করতে শিখছো। মোটিভেশন তোমার সাহস বাড়াবে তোমার মনোবল বাড়াবে। কিন্তু তোমার হয়ে কাজ করে দেবে না। তোমার কাজ তোমাকেই করতে হবে। একটা প্রকৃত বই তোমার জ্ঞান বাড়াবে। তোমার ধারণাগুলোকে উন্নত করবে। কিন্তু এটার মানে এই নয় যে তুমি বইটা পড়ে নেবে আর সফল্য তোমার দ্বারে চলে আসবে। সাফল্য পাওয়ার চেষ্টা তোমাকে নিজেই করতে হবে। ব্যর্থ তুমি হবেই কিন্তু চেষ্টার যে প্রক্রিয়া সেটা তোমাকে চালু রাখতে হবে এবং অনবরত করে যেতে হবে। যতক্ষণ না তুমি তোমার কাঙ্খিত লক্ষ্য অর্জন করছো। কোন একটা বিশেষ technique বা formula তোমাকে সাহায্য করে। কোনো একটা বিশেষ সমস্যা সমাধানের। কিন্তু সমাধানটা করতে হয় সেই তোমাকেই। এই কথাগুলো সত্য হলেও দুর্বল মন এগুলোকে হজম করতে পারে না। আর তাই যখনি তুমি কোনো প্রকৃত পদক্ষেপ নাও সে তোমাকে আটকানোর চেষ্টা করে। সে তোমাকে স্বল্পক্ষণের সন্তুষ্টির দিকে ঠেলে দেয়। সে তোমাকে বিশ্বাস করায় যে খুব বেশী বড় না হলেও চলবে। খুব বেশী পরিশ্রম না দিলেও চলবে। তুমি তো বেশ ভালোই আছো এটাই কি যথেষ্ট নয়। আলোচনাটি পুরোটাই দেখতে নিচের লিংকটিতে ক্লিক করুন। 

 

 

Leave a Comment