জীবনের লড়াইয়ের জন্য কি দরকার?

জীবনের লড়াইয়ের জন্য কি দরকার?

তোমার ক্ষমতাটাকে খোঁজো। কারণ দুর্বলতা বার করার জন্য তো লোক আছে। যদি পা রাখতেই হয় তাহলে সামনে রাখো কারণ পিছনের টানার জন্য লোক আছে। আরে যদি স্বপ্ন দেখতেই হয় তাহলে বড়ো দেখো কারণ নিচে নামানোর জন্য তো লোক আছে। যদি বানাতে হয় তাহলে মুহুর্তগুলোকে ভালো বানাও কারণ কথা বানানোর জন্য তো লোক আছে। আরে কতদিন তাদের ব্যাপারে ভাবতে থাকবে যারা তোমাকে পিছনে ফেলার জন্য লেগে পড়ে আছে। কারণ লোক ভ্যালু তোমার নয় তোমার ক্ষমতাটাকে করে। যদি তোমার কোন ক্ষমতা না থাকে তাহলে মনে করবে তোমার কোন ভ্যালু নেই। যদি তোমার যোগ্যতা বড় হয় তাহলে তোমার ভুলেও বালি বাজবে। এর জন্যই দেরি হোক কিন্তু কিছু হয়ে অবশ্যই দেখাবে। কারণ সবার সাথে লোক তোমার হাল নয় তোমার position জানতে চাইবে। আর যোগ্যতাটা তখন আসবে যখন তোমার কোন যায় আসবেনা যে লোক তোমার ব্যাপারে কি ভাবে। কখনো কখনো গোটা জীবন চলে যায় নিজেকে সঠিক প্রমাণ করার জন্য। কারণ লোক তো সেটাই ভাবে যেটা তারা ভাবতে চায়। যদি লোক কথাতেই সবকিছু বুঝে যেত তাহলে শীকৃষ্ণ এত বড় মহাভারত এমনি এমনি হতে দিতো। আর যেই লোকেদের থেকে ভয় পেয়ে তুমি তোমার পদক্ষেপ পিছিয়ে নাও। কখনো কি তাদের কারো সম্মান করতে দেখেছো। এরা সেই লোক গুলো যারা ধনী কেউ গালি দেয় আর গরিব কেউ। তফাৎ শুধু এই টুকুই যে গরিবদের সামনে দেয় আর ধনীদের পিঠের পিছনে। এই কারণেই তোমার কোন যায় আসার দরকার নেই এই লোকেদের জন্য। যারা গিরগিটির থেকেও বেশি রং বদলায়। কারণ যায় তখনই আসে যখন কোন যায় আসে না। আর আমার মনে হয় জীবনে এই সব লোক থাকা খুবই দরকার। কারণ রাস্তার রোদই তোমাকে জাগিয়ে রাখে। ছায়া থাকলে তুমিও ঘুমিয়ে পড়তে জীবনের রাস্তায় একটি কথা সর্বদা মনে রাখবে কোন কাজই ছোট আর বড় হয় না। সেটা যে কাজই করো না কেন সেখানে তোমার থেকে ভালো আর যেন কেউ না হয়। নিজেকে এতটাই যোগ্য বানিয়ে নাও আর তৈরি হয়ে যাও লড়াই এ যুক্ত হওয়ার জন্য। শুরুতেই এই লোক গুলো তোমার ওপর হাসবে তোমার ওপর ঠাট্টা করবে। আর তোমার সরলতার পরে এই লোকগুলোর তোমার মত হতে চাইবে। আর এটা জরুরী নয় যে প্রথমবারই তুমি সফলতা অর্জন করবে। যদি হেরে যাও তাহলে আরো চেষ্টা করতে ভয় পাবেনা। কারণ পরের বার শুরু শুন্য থেকে নয় অনুভব থেকে হবে। সফলতার এই রাস্তাতেই মুশকিল পরিস্থিতি হাজারো আসবে। শুধু মাত্র তুমি হতাশ হবে না মনে রাখবে এই জীবন তার সাথেই খেলে যেই খিলাড়ি অদ্ভুত রকমের হয়। এজন্যই আশা কখনোই ছাড়বেন না কালকের দিন আজকের থেকে অনেক ভাল হবে। কিছু লোকেদের আমি দেখেছি রাস্তার প্রথম মুশাকিলে হার মেনে নেয়। যারা এমন কিছু করতে পারতো যাতে গোটা দুনিয়ার গর্ব হত। কিন্তু তারা একটা মুশকিল পরিস্থিতিতে হার মেনে নেয় আরো হারের কাছে হেরে গিয়ে কি হবে। মজা তো তখনই আসবে যখন হারকে জিতিয়ে দেখাবেন। জীবনে যখনই ঠোকর খাবে তখনই মনে করবে যে জীবন তোমাকে দিয়ে জড়ো কিছু করাতে চায়। কারণ ঠোকর তোমাকে আটকানোর জন্য নয় রাস্তার মুশকিল পরিস্থিতির সাথে লড়াই করার জন্য আসে। যদি তোমার আশা থাকে আকাশে ওড়ার তাহলে কখনো মাটিতে পড়া ভাবনা আনবে না। কারণ এই ভাবনাগুলোই তোমার আশা গুলোকে দুর্বল করে দেয়। জীবনের এই মানুষটিকে কখনোই ছাড়বে না যে সব কঠিন পরিস্থিতিতে তোমার সাথে থাকে। কারণ আলোতে তো সবাই সাথে থাকে। কিন্তু তাকে কখনোই ছাড়বেন না যে জীবনের অন্ধকারে তোমার সাথে ছিল। আমাকে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবে তোমার জীবনের লক্ষ কি? ‍আলোচনাটি ভালো লেগে থাকলে অনেক অনেক শেয়ার করবে। তোমাদের এই সুন্দর সুন্দর কমেন্ট আমাদেরকে নতুন আলোচনা বানাতে মোটিভেট করে ও সব সময়ি বিনাপানির সঙ্গে যুক্ত থাকো ধন্যবাদ।

Leave a Comment