জেদ – Bangla Motivation

জেদ – Bangla Motivation

এই আলোচনাটি আপনাদের অনুপ্রাণিত করার জন্য Lets go. এই পৃথিবীতে লোকের যখন ইতিহাসকে মনে পড়বে। তখন লোকের মনে পড়বে ভগৎ সিং, মহাত্মা গান্ধীকে। ঈশ্বর চন্দ্র বিদ্যা সাগর রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে। নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু মাতঙ্গিনী হাজরা কে এবং সন্দীপ মহেশ্বরী বিবেকবিন্দ্রা কে। লোকের মনে পড়বে আব্রহাম লিংকন কে। লোকের মনে পড়বে বিরাট কোহলি আর শচীন টেন্ডুরকারকে। লোকের মনে পড়বে জ্যাক মা আর এ পিজে আব্দুল কালাম স্যার কে। তাহলে লোকের তোমাকে কেন মনে পড়বে না? এই পৃথিবীর ইতিহাস শুধুমাত্র ওই লোক গুলোকে মনে করে যারা এক সময় ইতিহাস রচিয়েছে। আর ইতিহাস কেবলমাত্র তারাই তৈরি করতে পারে যাদের মনের মধ্যে একটা জেদ থাকে। যাদের মনের মধ্যে একটা আগুন থাকে। আরে মনে করো সেই দিনগুলিকে যখন তুমি একটা ছোট্ট শিশু ছিলে তখন তোমার মা বাবাকে বলে তুমি সেই সব জিনিস আনিয়ে নিতে যেগুলি তোমার দরকার থাকতো। কারণ তখন তোমার মধ্যে একটা জেদ ছিল। কিন্তু এখন সেই জেদ তোমার মধ্যে সমাপ্ত হয়ে গেছ। যখন তুমি একটা ছোট্ট শিশু ছিলে তখন তুমি কিন্তু বলতে না যে আমার অলস আসছে। আমার শরীরটা ক্লান্ত লাগছে। আমার কোন কাজে মন লাগছে না। কিন্তু আজ এমন কি হয়েছে যে তোমার কোন কাজে মন লাগে না। পড়াশোনায় মন লাগে না। যখন তুমি একজন ছোট্ট শিশু ছিলে তখন তুমি জানতে না লজ্জা মানে কি? কিন্তু আজ কে একজন তোমাকে বলেছে লোকে কি বলবে। লোকে কি ভাববে। লোকের ভয়ে তুমি তোমার জীবনের সেই কাজগুলি করতে পারবে না যেগুলি তুমি করতে চাও। আরে তুমি যেটা করতে চাও সেটা করো। কেউ তোমাকে আটকাতে পারবে না। যদি তোমার মধ্যে একটা জেদ উঠে যায়। লোকে কি বলবে তার চিন্তা পরে করো। প্রথমে নিজের কাজের প্রতি বিশ্বাস করো। নিজের মনের মধ্যে একটা জেদ নিয়ে আসো। আর একটা ইতিহাস তৈরি করো। আর আলোচনা শেষে শুধুমাত্র একটা কথাই বলবো তোমার জীবনের ছোট ছোট সফলতা গুলোকে উপভোগ করতে শেখো। এই ছোট ছোট সফলতা গুলোই তোমাকে একদিন বড় সফলতার রাস্তায় পৌঁছে দেবে। ধন্যবাদ। 

Leave a Comment