ভ্যালেন্টাইন্স ডে ” এর জন্য অস্থির কিছু গিফট আইডিয়া

ভ্যালেন্টাইন্স ডে ” এর জন্য অস্থির কিছু গিফট আইডিয়া

হ্যালো বন্ধুরা কেমন আছেন সবাই? আমি ভালো আছি। তবে একটু পার্সোনাল কাজে প্রচুর ব্যস্ত থাকায় আপনাদের সাথে বেশ কয়েকদিন হল যোগাযোগ করতে পারিনি। আরো সামনে কয়েক দিন ব্যস্ত থাকবো তবে মাঝখানে আপনাদের সাথে যোগাযোগ না করে থাকতে পারলাম না। এজন্য আবারও হাজির হলাম। বন্ধুরা সামনে ১৪ই ফেব্রুয়ারি আসতেছে অনেকেই অনেক প্লান, পরিকল্পনা করে রেখেছেন। আপনাদের পরিকল্পনা সার্থক হোক সে দোয়াই করি আমরা। তবে এবারের ১৪ই ফেব্রুয়ারি শুক্রবার পড়ে গেছে। এজন্য বাংলাদেশী ভাইদের একটু ঝামেলায় হইলো মনে হয়। তো যাই হোক! আজকের আলোচনাতে আমি আপনাদের বলবো, যে ১৪ই ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে গার্লফ্রেন্ড, বয়ফ্রেন্ড বা হবু গার্লফ্রেন্ড, বয়ফ্রেন্ড বা আপনার কোন ফ্রেন্ডকে কি কি গিফট দিতে পারবেন বা কি গিফট দিলে সে আপনার প্রতি ইমপ্রেস হবে আপনার প্রতি খুশি হবে। এমন কিছু অস্থির গিফটের কথায় আজ বলবো। 

১। বন্ধুরা আসলে ১৪ই ফেব্রুয়ারি বলতেই আমাদের মাথায় আগে ফুলের কথাই ভেসে ওঠে। তো ফুল আসলেই অনেক মজার একটা জিনিস। যার উপর আসলে মানুষের রুচির পরিবর্তন হয় না, সবাই ফুলকে ভালোবাসে। এজন্য আমি শুরুতে ফুলের কথাই বলছি, যে আপনি আপনার পছন্দের মানুষকে ফুল গিফট করতে পারেন। তবে এখানে আপনাকে একটু মাথায় রাখতে হবে, যে স্বভাবিক ভাবে সবাই যেভাবে ফুল দেয় আপনারটা যেন তাদের থেকে আলাদা হয় বা আপনার ফুলটা যেন অন্য সবার থেকে একটু ব্যতিক্রম হয়। যেমন ধরুন: বেশ কয়েকটা গোলাপ এক জায়গায় বেঁধে খুব সুন্দর করে মুড়িয়ে সেটা তাকে দিতে পারেন। অথবা ন্যাচারাল কোন ফুল যেগুলো সাধারণত কিনতে হয় না বাট আপনি কোন জঙ্গল থেকে কুড়িয়ে কুড়িয়ে বেশ কয়েকটা ফুল এক জায়গায় করে বেঁধে তাকে দিতে পারেন। রজনীগন্ধা স্টিক গুলো বাড়তি অংশটুকু ফেলে দিয়ে শুধু ফুলটুকু নিয়ে অন্য কোন ফুলের মাঝখানে গেঁথে দিতে পারেন। বেশ কয়েকটা গাঁদা ফুল এক জায়গায় করে দিতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে কিন্তু গাঁদা ফুলের নিচের অংশটা একটু বেশি লম্বা থাকতে হবে। তো ১৪ই ফেব্রুয়ারীতে আপনি আপনার গার্লফ্রেন্ড বা হবু গার্লফ্রেন্ডকে ফুল গিফট করতে পারেন। 

২। যাকে আপনি গিফট করতে চাচ্ছেন, তার সুন্দর একটা ছবি যদি আপনার কাছে না থাকে তাহলে একটু কষ্ট করে যোগাড় করুন। তো সেই ছবিটা গ্লাসে প্রিন্ট করে তাকে দিতে পারেন। খুব বেশি খরচা হবে না ২০০-৩০০ টাকা খরচা হতে পারে। অথবা তার ছবিটা বের করে নিয়ে সুন্দর ডিজাইনের কোন ফ্রেম দিয়ে বাঁধিয়ে তাকে গিফট করতে পারেন। অথবা তিন ফিট বাই আড়াই ফিট অথাবা তিন ফিট বাই তিন ফিট প্যানার ওপর তার ছবি প্রিন্ট করে তাকে গিফট করতে পারেন। বড় বড় যে প্রিন্টের দোকান গুলো আছে সেখানে গিয়ে বললেই তারা বলে দেবে। ২০০-২৫০ টাকা খরচ হতে পারে। আর যদি আপনি এটা করে তাকে দিতে পারেন, তাহলে আমি ১০০% সিওর যে সে আপনার প্রতি ইমপ্রেস হবেই হবে। 

৩। বন্ধুরা এই দিনে বড় কোন গিফট যেটা আকারে বড় এমন গিফট সবার জন্যই ঝামেলাপূর্ণ। কারণ এই দিনে সবাই সবার দিকে তাকিয়ে থাকে। যদি কেই বড় কিছু হাতে নেয় তাহলে সবাই ঐরকম কিছুই মিন করে। এজন্য আপনার দেওয়া গিফটটি যদি একটু ছোট হয় তাহলে সেটা আপনার পছন্দের মানুষটির সামলানোটা খুব ইজি হবে এবং সে নিতেও সংকোচ বোধ করবে না। এজন্য আমার আইডিয়া হল বাজার থেকে ২০-৩০ টাকার গিফট পেপার কিনুন, তারপর ২০-৩০ অথবা ৫০ টাকার মাঝে একটা ডেইরি মিল্ক চকলেট কিনুন। তারপর আপনার মনের সমস্ত কথা একটা সাদা পেজে লিখে চকলেটটা ওই কাগজ দিয়ে মোড়ান, তারপর গিফট পেপার গুলো ছোট করে কেটে এক এক করে মোড়াতে থাকুন, যাতে করে আপনার গিফটটা খুলতে একটু সময় লাগে। এভাবে আপনি কাউকে গিফট দিতে পারেন এটা অনেক মজার এবং আকর্ষণীয়। 

৪। যদি আপনার ইনভেস্ট করার মত টাকা থাকে, আর যদি আপনার গিফট সে নেয় এবং যদি সেই ব্যক্তিটা মেয়ে হয় তাহলে মেয়েদের এখন খুব সুন্দর সুন্দর কলেজ ব্যাগ বা সাইট ব্যাগ বের হয়েছে এগুলো তাকে গিফট করতে পারেন, এগুলো অসম্ভব সুন্দর, মেয়েরা এগুলো খুব পছন্দ করে। আর যদি আপনার গিফট নেওয়ার ব্যক্তিটা ছেলে হয়, তাহলে আপনি ছেলেদের ঘাড় ব্যাগ অথবা স্যান্ডেল গিফট করতে পারেন। স্যান্ডেলটা একটু ইউনিক এজন্য একটু আকর্ষণীয় হবে। 

৫। চশমা। বন্ধুরা এই ১৪ই ফেব্রুয়ারিতে যদি আপনি আপনার পছন্দের মানুষকে গিফট করতে চান, তাহলে ছোট জিনিসের মধ্যে চশমা খুব সুন্দর একটা গিফট। ১৫০-২০০ টাকার মধ্যে এতো সুন্দর চশমা হয় যা আসলে বিশ্বাসই করা যায় না। তো যদি আপনার পছন্দের মানুষটি মেয়ে হয়, তাহলে জিরো পাওয়ারের লেডিস গ্লাস গুলো গিফট করতে পারেন। আর যদি আপনার পছন্দের মানুষ ছেলে হয় তাহলে বিভিন্ন কালারের সানগ্লাস বের হয়েছে বা জিরো পাওয়ারের গ্লাসেসগুলো যেগুলো এখন ছেলেরা পড়ে খুব সুন্দর দেখায় আপনি সেগুলো গিফট করতে পারেন। 

৬। ওড়না অথবা টি-শার্ট। বন্ধুরা ১৫০ থেকে ২০০ টাকার মধ্যে মেয়েদের ওড়না পাওয়া যায়। যেগুলো মেয়েরা স্বাভাবিকভাবে ইউজ করে, সেটা গিফট করতে পারেন। আর যদি কোনো ছেলেকে গিফট করতে চান, তাহলে ১৫০-২০০ টাকার মধ্যে অনেক সুন্দর সুন্দর টি-শার্ট পাওয়া যায় সেগুলো গিফট করতে পারেন। আমার মনে হয় এগুলো সব চাইতে বেশি আকর্ষণীয়। 

৭। খুব সুন্দর ডিজাইনের মোবাইলের সেফটি কাভার অথবা ভালো ব্র্যান্ডের কোন হেডফোন। বন্ধুরা খুব অল্প টাকায় এই জিনিসগুলো খুবই আকর্ষণীয় এবং খুবই ছোট। আর এই জিনিসগুলো প্রতিদিন সেই মানুষটির চোখের সামনে পড়বে, ইউজ করা পড়বে, তখন অবশ্যই আপনার কথা তার মনে পড়তে বাধ্য। এ দুইটা গিফট অনেক আকর্ষণীয়। আপনি চাইলে এই ১৪ই ফেব্রুয়ারীতে আপনি আপনার পছন্দের মানুষকে এই দুটোর মাঝে যেকোন একটা অথবা দুটোই গিফট করতে পারেন। তো এই ছিল আজকের গিফট এর আলোচনা। এছাড়াও যদি আপনার কোনো গিফট এর আইডিয়া মাথায় থেকে থাকে তাহলে সেটাও ইউজ করতে পারেন। সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন গুড বাই। 

Leave a Comment